নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের রেজিস্ট্রেশন শুরু

digitalsomoy

দেশে টানা সপ্তমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসার উদ্যোগে আয়োজিত ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০২১’।

সফটওয়্যার বাণিজ্য খাতের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেসের (বেসিস) তত্ত্বাবধানে এবং বেসিস স্টুডেন্টস ফোরামের সহায়তায় এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

প্রযুক্তিবিদ, বিজ্ঞানী, নকশাবিদ, চিত্রশিল্পী, শিক্ষাবিদ, উদ্যোক্তাসহ সবার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করার মাধ্যমে পৃথিবীর বিভিন্ন বৈশ্বিক সমস্যা সমাধানে উদ্ভাবনী সমাধান খুঁজে বের করাই হলো এই প্রতিযোগিতার মূল লক্ষ্য।
বুধবার (২৮ জুলাই) ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০২১’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয় আজ থেকে শুরু হচ্ছে এই প্রতিযোগিতার রেজিস্ট্রেশন।

সংবাদ সম্মেলনে নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জের উপদেষ্টা আরিফুল হাসান আপু বলেন, এবছর নাসা আন্তর্জাতিকভাবে বিশ্বের ২৫০টি শহরে এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করবে। বেসিস বাংলাদেশের ৯টি শহরে (ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, রাজশাহী, রংপুর, বরিশাল, খুলনা, কুমিল্লা ও ময়মনসিংহে) এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করবে। এবার ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ-২০২১’ প্রতিযোগিতাটি ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হবে। ভার্চুয়ালি প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া যাবে। নিবন্ধন করতে হবে অনলাইনে। দেশের যেকোনো স্থান থেকে অংশ নিতে আরবে যেকোনো বয়সের যে কেউ।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য এবং বিএসসিএল এর পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহাকাশ গবেষণার দিকে গুরুত্ব দিচ্ছেন। ফলে ২০২৩ সালে দ্বিতীয় স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের চিন্তা করা হচ্ছে এবং কাজ চলছে অ্যারো স্পেস এভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয় নিয়ে। নাসার এমন উদ্যোগ দেশের তরুণতরুণীদের মধ্যে মহাকাশ গবেষণা নিয়ে আগ্রহ তৈরি করবে।

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ প্রতিযোগিতায় ছেলেদের পাশাপাশি নারীদের বেশি বেশি অংশগ্রহণের আহ্বান জানান বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি ফারহানা এ রহমান।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর। তিনি জানান, এই প্লাটফর্মের মাধ্যমে সারা বিশ্বের মানুষের কাছে নিজেদের উদ্ভাবনী চিন্তাভাবনা তুলে ধরা সম্ভব।

আগ্রহীকে প্রতিয়োগিতায় অংশগ্রহণ করতে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এই লিংকে রেজিস্ট্রেশন করা যাবে।