অনুষ্ঠিত হলো আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবসের সেমিনার

digitalsomoy

আন্তর্জাতিক প্রবীণ দিবস-২০২১ উপলক্ষে বাংলাদেশ সিনিয়র সিটিজেন ওয়েলফেয়ার সোসাইটি কর্তৃক আয়োজিত ‘বাংলাদেশে প্রবীণজনগোষ্ঠীর উপর কোভিড-১৯ এর প্রভাব ও করনীয়’ শীর্ষক সেমিনার ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ৭১ মিলনায়তনে আয়োজন করা হয়। উক্ত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সরকারের সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের মাননীয় প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু, এমপি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ত্ব করেন সোসাইটির চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ সুপ্রিমকোর্টের আপিল বিভাগের বিচারপতি ও প্রেস কাউন্সিলের সাবেক চেয়ারম্যান বিচারপতি মোঃ মমতাজ উদ্দিন আহমেদ। অনুষ্ঠানের শুরুতে কোরআন থেকে তিলাওয়াত করেন সোসাইটির অন্যতম পৃষ্ঠপোষক প্রফেসর ডা. মুহাম্মাদ আমিরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাষ্ট্রি বোর্ডের চেয়ারম্যান ও সোসাইটির পৃষ্টপোষক ড. মোঃ সবুর খান। সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থপন করেন ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের পপুলেশন সায়েন্সেস বিভাগের অধ্যাপক সাবেক চেয়ারম্যান ড. মঈনুল ইসলাম। সেমিনারে আমন্ত্রিত আলোচক হিসেবে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন স্যার উইলিয়াম বেভারিজ ফাউন্ডেশনের কান্ট্রি ডিরেক্টর মেজর জেনারেল জীবন কানাই দাস (অবঃ) এবং গাজী টিভির প্রধান সম্পাদক ও বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের সহ-সভাপতি সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা। আলোচলায় অন্যান্যদের মধ্যে অংশগ্রহণ করেন উন্মুক্ত বিশ^বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা উপাচার্য ও আন্তর্জাতিক পরমানু বিজ্ঞানী প্রফেসর ড. এম শমসের আলী, জাপান বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশীপ হসপিটালের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. সরদার এ নাঈম, বিআইডিএস ’র সিনিয়র রিসার্চ ফেলো ড. শরিফা বেগম। অনুষ্ঠানের স¦াগত বক্তব্য রাখেন সোসাইটির ভাইস চেয়ারম্যান প্রকৌশলি কবির আহমেদ ভূইঞা ও প্রধান অতিথিকে শুভেচ্ছা স্বারক হিসেবে ক্রেস্ট প্রধান করেন সোসাইটির ভাইস চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. হুমায়ুন কবির চৌধুরী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সোসাইটির মহাসচিব ইঞ্জিনিয়ার মোঃ ফজলুল হক ও সমাজকল্যান সচিব মিসেস সুমন রাহিদ। সেমিনারে  মূল প্রবন্ধে প্রবীণদের ক্রমবর্দমান সংখ্যা ও সমস্যা এবং করোনায় তাদের ঝুঁকি ও করণীয় সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরা হয়।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী জনাব মোঃ আশরাফ আলী খান খসরু, এমপি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা  অত্যন্ত প্রবীণ বান্ধব। প্রবীণদের কল্যাণে কাজ করার জন্য সরকার সর্বদা প্রস্তুত। প্রবীণদের স্বার্থে এই সোসাইটি চাইলে তার মন্ত্রণালয় যৌথভাবে কাজ করতে প্রস্তুত। এই সোসাইটির কাজে মন্ত্রণালয় যথাসম্ভব সহযোগীতা  প্রদানের জন্য  তিনি আশ্বাস প্রদান করেন।

অনুষ্ঠানে প্রবীনদের স্বাস্থ্য সেবাসহ তাদের কল্যাণে সরকারকে আরো অনেক কিছু করতে হবে এবং দৃশ্যমান কার্যক্রম গ্রহণ করতে হবে বলে সভায় দাবী করা হয়। এই মহতি কাজে সমাজের বিত্তবানদেও  এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়।