স্ত্রীকে ১ কোটি রুপি দিয়ে ডিভোর্স হানি সিংয়ের

digitalsomoy

অবশেষে আইনিভাবে স্ত্রীর থেকে আলাদা হতে চলেছেন পপ তারকা ইয়ো ইয়ো হানি সিং। মোটা টাকা খোরপোশের বিনিময়ে স্ত্রী শালিনীর থেকে ডিভোর্স পাচ্ছেন তিনি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, দিল্লির সাকেট জেলা আদালতে তাদের ডিভোর্স চূড়ান্ত হয়েছে। শালিনীর সঙ্গে ডিভোর্স চূড়ান্ত হওয়ার পর তার হাতে এক কোটি রুপির চেক তুলে দিয়েছেন হানি সিং।

গত বছর হানি সিংয়ের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থা, মানসিক নির্যাতন ও আর্থিকভাবে নিগ্রহের অভিযোগ তোলেন শালিনী তালওয়ার। পরে মামলাও করেন। এই গায়কের কাছে ২০ কোটি রুপি ক্ষতিপূরণ দাবি করেন শালিনী। অবশেষে দিল্লির আদালতে বিবাহ বিচ্ছেদের বিষয়টি মীমাংসা হয়। আদালতে হানির কাছে খোরপোষ হিসেবে ২০ কোটি রুপি দাবি করেছিলেন শালিনী। পরে ১ কোটি রুপিতে দুপক্ষই রাজি হয়েছে।

একের পর এক হিট গান উপহার দিয়ে অল্প সময়ের মধ্যেই দর্শকদের মন জয় করেন হানি সিং। সিনেমার পাশাপাশি সুপারহিট হয়েছে তার ভিডিও অ্যালবামগুলোও। ২০১৪ সালে একটি রিয়ালিটি শোয়ে প্রথমবার নিজের স্ত্রীর সঙ্গে অনুরাগীদের আলাপ করিয়ে দিয়েছিলেন হানি সিং। তিনি যে বিবাহিত, সেই খবর শুনে অনেক নারী ভক্তের হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হয়।

প্রায় ২১ বছরের দাম্পত্য হানি সিং ও শালিনী তলওয়ারের। হানি সিং ও তার পরিবারের বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ আনেন শালিনী। শালিনী জানান, তাকে যৌন হেনস্তার পাশাপাশি মানসিক নির্যাতনও করা হত। এমনকি হানি সিংয়ের বাবার বিরুদ্ধেও অশালীন আচরণের অভিযোগ এনেছিলেন শালিনী।

এদিকে নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করেন হানি সিং।  ইনস্টাগ্রামে বিজ্ঞপ্তি দিয়ে পপতারকা জানিয়েছিলেন,  এতদিন নিজের গান নিয়ে সমালোচনা, স্বাস্থ্য নিয়ে গুজব, নেতিবাচক মিডিয়া কভারেজ নিয়ে প্রকাশ্যে কোনো কথা তিনি বলেননি। তবে এবারে তাকে মুখ খুলতেই হচ্ছে। কারণ এবারে তার বৃদ্ধ বাবা-মা ও ছোট বোনকে আক্রমণ করা হচ্ছে।