বেনজীরের সাভানা ইকো রিসোর্ট বন্ধ ঘোষণা

digitalsomoy

জমি ও সড়ক দখলসহ অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে অভিযুক্ত পুলিশের সাবেক মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ ও তার পরিবারের সদস্যদের নামে গোপালগঞ্জে করা সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্ক বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।সোমবার থেকে সেখানে কোনো দর্শনার্থী ঢুকতে পারছেন না।

সাভানা ইকো রিসোর্টের বুকিং ম্যানেজার মো. সাব্বির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা গেছে, ২০১৫ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের মহাপরিচালক ও ২০২০ সাল থেকে ২০২২ পর্যন্ত পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) থাকা অবস্থায় গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার বৈরাগীটোল গ্রামে ৬২১ বিঘা জমিতে সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্ক গড়ে তোলেন বেনজীর। অভিযোগ আছে, রিসোর্টের জমির পুরোটিই হিন্দু সম্প্রদায়কে ভয় দেখিয়ে, জোর করে ও নানা কৌশলে কিনে নিয়েছিলেন বেনজীর। তা ছাড়া কিছু জমি তিনি দখলও করেছিলেন। বিষয়টি গণমাধ্যমে চলে এলে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) তদন্ত শুরু করে। পরে আদালত সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্কসহ বিভিন্ন স্থাপনা ক্রোকের নির্দেশ দেন।

এ নির্দেশনার পর রাতের আঁধারে রিসোর্টের সব মালামাল সরিয়ে ফেলা হয়।   সোমবার রিসোর্টটিতে গেলে ‘অনিবার্য কারণবশত সাময়িকভাবে সাভানা পার্ক বন্ধ থাকবে’ লেখা একটি প্ল্যাকার্ড দেখা যায়।

আরও জানা গেছে, জমি দখল ও বেনজীরকে নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বললে এলাকাবাসীর ওপর হামলা চালানো হয় বলেও অভিযোগ উঠেছে। পুলিশের চালানো এ হামলায় চারজন আহত হন। তারা হলেন- ইকোপার্ক–সংলগ্ন সাহাপুর ইউনিয়নের বৈরাগীটোল গ্রামের বিনোদ বিহারি বলের ছেলে বিপ্লব বল, সন্তোষ বলের ছেলে সঞ্জয় বল ও সাগর বল এবং ওই এলাকার রনি নামের এক যুবক। পরে পার্কের নিরাপত্তার জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়। সোমবার পার্ক বন্ধ করে কর্তৃপক্ষ।

সাভানা ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড ন্যাচারাল পার্কের বুকিং ম্যানেজার মো. সাব্বির জানান, আপাতত রিসোর্ট ও পার্কের কার্যক্রম বন্ধ করা হয়েছে। পার্কের সার্ভারের সমস্যার কারণে দর্শনার্থীদের ভেতরে নেওয়া যাচ্ছে না। যে কারণে কয়েকদিন পার্ক বন্ধ থাকবে। সার্ভার সমস্যার সমাধান হলে কয়েকদিনের মধ্যে পার্ক খুলে দেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।